a
Sorry, no posts matched your criteria.
Image Alt
 • গ্রুমিং  • গরমের দিন কীভাবে ফিট থাকবেন

গরমের দিন কীভাবে ফিট থাকবেন

অবশেষে গ্রীষ্ম এসে গেছে। আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে কীভাবে এই গরমে নিজেকে ফিট রাখবেন? চিন্তার কোনো কারণ নেই, এখানে কিছু টিপস দেওয়া হলো যেগুলো গরমে আপনার কাজে আসতে পারে।

পান করুন যথেষ্ট

প্রথম কথা হচ্ছে আপনাকে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। মেডিক্যাল সায়েন্স বলে, একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের দিনে প্রতিদিন ৬৪ আউন্স বা ৮ গ্লাস পানি পান করা উচিত। তবে এটা হচ্ছে নূন্যতম। গরম পড়লে আপনার অন্তত ১০ আউন্স পানি পান করা উচিত। এটা ব্যায়ামের সময় আপনার শরীরের তাপমাত্রা কম রাখতে সাহায্য করে। আপনার মনে প্রশ্ন হতে পারে, প্রতিদিন মিটিং বা কনফারেন্স থাকলে কীভাবে এত ঘন ঘন পানি খাবেন? সেজন্য আপনি সঙ্গে করে একটা ওয়াটার ক্যারিয়ার রাখতে পারেন সবসময়।

ব্যায়াম করুন পরিকল্পনামাফিক
আপনি যদি গরমের দিনে হালকা ওয়ার্কআউট করতে চান, তাহলে ভেবেচিন্তে করুন। বেশির ভাগ মানুষ এক্সারসাইজ ঠিকমতো করতে পারে না, কারণ তাদের কোনো নির্দিষ্ট প্ল্যান থাকে না। তাই একই কাজ বার বার করলে সেটার ওপর আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। বিশেষ করে গরমের দিনে যখন দ্রুত আপনি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন তখন অবশ্যই আপনার পরিকল্পনা থাকা উচিত। বাইরে বেরুতে হলে সেটা ভোরে করার চেষ্টা করুন। গরমে এয়ার কন্ডিশনড জিমে অনেক ভীড় থাকতে পারে। সেজন্য এমন সময়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন যখন ভীড় কম থাকে। একটা ডায়েরি রেখে সেটা নিয়মিত মনিটর করতে পারেন। এখন তো অনেক স্মার্টফোন অ্যাপেই এই কাজটা করা যায়।

প্রতিদিন লেবুর পানি খান

লেবুর পানি যে শুধু রিফ্রেশিং সেটাই নয়, এটার হজমগুণ আপনার ওজন কমাতেও সাহায্য করে। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস লেবুর পানি খাওয়ার চেষ্টা করুন। বিশ্বাস করুন, এটা দারুণ সুফল নিয়ে আসতে পারে। আর ওজন কমানোর সঙ্গে লেবু আপনার ত্বককে পরিষ্কার রাখে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।

সকালের নাস্তা ঠিকমতো খান

ব্রেকফাস্ট সারাদিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাবার। অবশ্যই একজন কর্মজীবি মানুষের জন্য সকালের নাস্তাটা অনেক বেশি তাড়াহুড়ো করে করতে হয়। সেজন্য কারো কারও ঠিকমতো নাশতাও করা হয় না। এটা করা উচিত নয়। আপনার শরীরের জ্বালানি দরকার, এবং সেটার জন্য ব্রেকফাস্ট হচ্ছে আসল উৎস। দিনে অন্তত দুইটি আলাদা সময়ে কার্ব ও প্রোটিন নেওয়ার চেষ্টা করুন। নাশতায় আম, কলা বা যে কোনো ফল রাখার চেষ্টা করুন। যদি পারেন, ভিটামিন সিও খেতে পারেন।

বেশি খাবেন না

গরমে নিয়মিত খেতে হবে আপনাকে, খেয়াল রাখতে হবে খুব বেশি সময় যেন অভুক্ত না থাকেন। স্বাস্থ্যকর খাবার সময় নিয়ে ধীরে ধীরে খাবেন। যদি সম্ভব হয়, দিনে চার পাঁচ বার খাওয়ার চেষ্টা করবেন। আপনার রাতে কোনো দাওয়াতে অনেক বেশি মুখরোচক খাবার থাকতে পারে চোখের সামনে, তবে বেশি খেলে আপনার হাঁসফাঁস লাগবে। ডিনারের পর ফিজি ড্রিংক্স আর মিষ্টি না খেলেই ভালো।

সঠিক খেলাটি খেলুন

গরম আউটডোর স্পোর্টসের জন্য ভালো। সম্ভব হল সাঁতারের মতো কিছু বেছে নিন। এটা আপনার শরীরকে অনেক বেশি রিচাজর্ড রাখবে এবং ঠাণ্ডাও রাখবে। সাঁতারের আগে সম্ভব হলে ফ্রুট জুস খাওয়ার চেষ্টা করুন।

রোদে বাইরে যাবেন না

যদি সম্ভব হয়, গরমে বাইরে যাবেন না। চেষ্টা করুন একদম সকালে ওয়ার্কআউট সেরে ফেলতে, যাতে দুপুরের দিকে করতে না হয়। বাইরের বাতাস অবশ্যই ভালো, তবে বাইরে বেরুতে হলে সকাল সকাল বের হলেই ভালো। আর বের হলে ছাতা বা সানস্ক্রিনের মতো সুরক্ষা নিন।

POST A COMMENT