a
Sorry, no posts matched your criteria.
Image Alt
 • ত্বকের যত্ন  • চেহারা  • কীভাবে রাতারাতি ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন?

কীভাবে রাতারাতি ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন?

আপনার কি কখনো বড় কোনো উপলক্ষের আগে ব্রণের সমস্যা দেখা দিয়েছে? এরকম হতেই পারে। তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই, ব্রণ দূর করার জন্য অনেক ভালো উপায় আছে। তারই কয়েকটি এখানে দেওয়া হলো।

অ্যাপল আইস

আপনার ব্রণ বা গোটা ওঠা জায়গায় বরফের কিউব লাগালে ত্বকের জ্বলাপোড়া ও গোটার লালচেভাব অনেকটাই কমে যাবে। চিকিৎসকেরা বলেছেন, আগে ভালোমতো মুখ ধুয়ে ফেলতে। এরপর আপনার ব্রণযুক্ত ত্বকের ওপর একটা পেপার টাওয়েলের মধ্যে বরফ মিশিয়ে আলতো করে ঘষুন। কমপ্রেসড বা স্টিমড টাওয়েল দিয়ে বরফ আরও ভালোভাবে কাজে লাগানো যায়। হট ট্রিটমেন্ট ব্যবহার করে আপনার ঘাম থেকে যে দাগ হয় সেটা আগে দূর করতে পারেন। ৫-১০ মিনিট গরম করার পর আপনি চুলকানি বা ফোলা কমে যাওয়ার জন্য বরফ দিতে পারেন। যতক্ষণ দরকার হবে, প্রতিদিন এই কাজটা একবার করে করতে পারেন।

ইয়োগার্ট ফেস মাস্ক

ইয়োগার্ট এমন একটা প্রাকৃতিক ও মৃদু ক্লিনজার, যেটির অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল গুণও আছে। এতে প্রোবায়োটিকস আছে যা ত্বক ও ব্রণের জন্য ভালো। ইয়োগার্ট আরও কিছু জিনিসের সাথে মেশালে মাস্কের কার্যকারিতা বাড়ে। ওটমিল কালো দাগ দূর করতে ও এক্সফোলিয়েট করতে সাহায্য করে। প্রথমে ইয়োগার্ট বা দই মিশিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। নিশ্চিত করুন ওটমিল যেন ভালোভাবে মিশে যায়। এরপর এই মিশ্রণটা আপনার মুখে লাগান, ২০ মিনিট ধরে সেটি রেখে দিন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ক্লে মাস্ক
বাজারে এখন বেশ কিছু ভালো ক্লে মাস্ক পাওয়া যায় যা দারুণ কাজে দিতে পারে। আপনার মুখে মাখুন, ৫-১০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। ত্বক থেকে সব ময়লা শুষে নিয়ে ত্বককে করবে আরও সুন্দর ও মসৃণ।

অ্যান্টি-অ্যাকনে ফেসওয়াশ

কিছু ফেসওয়াশের অ্যান্টি-অ্যাকনে গুণ আছে যেটা আপনার অ্যাকনে বা ব্রণ সমস্যার সমাধান ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। অ্যাকনের সমস্যা গুরুতর হলে বেনজয়েল পার অক্সাইড ব্যবহার করা যায়, এটাও কিছু কিছু ফেসওয়াশে থাকে। তবে স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য কিছু ব্যবহার করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

মধু

হাজার বছর ধরে অ্যাকনের যত্নে মধু ব্যবহার করা হয়ে আসছে। মধুতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ময়লা দূর করতে সাহায্য করে এবং ত্বকের দাগ পুরোপুরি তুলে ফেলে। আপনি পরিষ্কার একটা কটন বাডের মধ্যে মধু নিয়ে আক্রান্ত জায়গায় ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এটা বডি মাস্কের সাথেও মিশিয়ে ব্যবহার করা যায়।

এই কাজগুলো করলে আপনি খুব সময়ের মধ্যে ত্বকের লাবণ্য ফিরে পেতে পারেন। অ্যাকনের জন্য আপনি কালো দাগ তুলতে ক্রিম বা অয়েনমেন্টও ব্যবহার করতে পারেন। শুধু আপনাকে একটু সতর্ক হতে হবে।

POST A COMMENT